ফেসবুক থেকে বিদায় নেবেন ? ফেসবুক প্রোফাইল ডিলিট করার আগে জানুন

0
3160
Quitting Facebook

ফেসবুক থেকে বিদায় নেবেন ভাবছেন ? ফেসবুক প্রোফাইল ডিলিট অথবা ডি-অ্যাক্টিভেট করার আগে কি করলে, কি হবে জেনে নিন তারপর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন। আপাতত দুভাবে ফেসবুক বন্ধ করার পন্থা রয়েছে।

  • প্রথমত আপনি যদি সাময়িক ভাবে ফেসবুক বন্ধ রাখতে চান সেক্ষেত্রে আপনার জন্য রয়েছে ফেসবুক নিষ্ক্রিয় (ডি-অ্যাক্টিভেট) করে রাখার অপশন, তবে এক্ষেত্রে আপনি চাইলেই আপনার ফেসবুক প্রোফাইল পুনরায় চালু করে ব্যবহার করতে পারবেন।
  • দ্বিতীয়ত আপনি আপনার ফেসবুক প্রোফাইল পাকাপাকি ভাবে বন্ধ করতে পারেন সেক্ষেত্রে আপনার জন্য রয়েছে ফেসবুক স্থায়ী ভাবে বন্ধ (ডিলিট) করার অপশন, স্থায়ী ভাবে বন্ধ করলে আপনার তথ্য সাধারণত মুছে ফেলা হয় এবং একটা নির্দিষ্ট সময় পেরিয়ে যাওয়ার পর আপনি আর কোনোভাবেই আপনার ফেসবুক প্রোফাইলের তথ্য ফেরত পাবেন না।

আপনি যদি স্থায়ীভাবে ফেসবুক ডিলিট করেন তখন কি হয় ?

  • আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট পুনরায় চালু করতে পারবেন না।
  • আপনার ফেসবুক প্রোফাইল, সমস্ত ফটো, ভিডিও এবং যা কিছুই আপনি যোগ করেছিলেন সব মুছে ফেলা হবে। আপনি কোনো তথ্যই আর ফেরত পাবেন না।
  • এমনকি ফেসবুক মেসেঞ্জার ও ব্যবহার করতে পারবেন না।
  • ফেসবুক এর মাধ্যমে কোনো ওয়েবসাইট, পরিষেবা বা কোনো অ্যাপে রেজিস্টার করে থাকলে (যেমন পিন্টারেস্ট / স্পটিফাই ইত্যাদি) সেগুলি ব্যবহার করা যাবে না। ওই একাউন্টগুলো ফিরে পেতে উক্ত ওয়েবসাইট, পরিষেবা বা অ্যাপ কতৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে।
  • কিছু তথ্য যেমন যে ম্যাসেজগুলি আপনি বন্ধুদের পাঠান আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট মুছে যাওয়ার পর সেগুলি দেখা যাবে কারণ পাঠানো ম্যাসেজ এর কপি বন্ধুদের ইনবক্সে স্টোর থেকে যায়।

আপনি যদি অস্থায়ীভাবে ফেসবুক বন্ধ করেন বা ফেসবুক থেকে সাময়িক বিরতি নিতে চান তখন কি হয় ?

ফেসবুক থেকে সাময়িক বিরতি নিতে চাইলে আপনি অস্থায়ী ভাবে আপনার ফেসবুক প্রোফাইল নিষ্ক্রিয় (ডি-অ্যাক্টিভেট) করে রাখতে পারেন। যখন আপনি আপনার ফেসবুক প্রোফাইল ডিএক্টিভেট করে রাখবেন তখন :

  • কেউ আপনার ফেসবুক প্রোফাইল দেখতে পাবে না বা আপনার প্রোফাইলে যেতে পারেব না।
  • আপনার আপলোড করা ফটো, ভিডিও এবং আপনার পোস্টগুলি মুছে ফেলা হবে না।
  • আপনার বন্ধুদেরকে পাঠানো বার্তার মতো কিছু তথ্য, এখনও দেখা যেতে পারে৷
  • আপনার বন্ধুরা এখনও তাদের বন্ধুদের তালিকায় আপনার নাম দেখতে পেতে পারেন: এটা শুধুমাত্র আপনার বন্ধুরা দেখতে পান এবং শুধুমাত্র তাদের বন্ধুদের তালিকায় দেখা যায়।
  • ফেসবুক প্রোফাইল নিষ্ক্রিয় থাকলেও, আপনি চাইলে, বা মেসেঞ্জার এ লগইন করা থাকলে মেসেঞ্জার ব্যবহার করা চালিয়ে যেতে পারেন। ম্যাসেজ আদান প্রদানের সময় আপনার প্রোফাইল এর ছবি দেখা যাবে এবং কেউ আপনাকে ম্যাসেজ পাঠানোর জন্য আপনার নাম ধরে সন্ধান করতে পারবে। আপনি যদি মেসেঞ্জারও নিষ্ক্রিয় করে রাখতে চান সেক্ষেত্রে আলাদাভাবে মেসেঞ্জার ডি-অ্যাক্টিভেট করে নিতে হবে।
  • গ্রুপ অ্যাডমিনরা এখনও আপনার নাম সহ আপনার পোস্ট ও মন্তব্যগুলো দেখতে পেতে পারেন।
  • ফেসবুক এর মাধ্যমে কোনো ওয়েবসাইট, পরিষেবা বা কোনো অ্যাপে গেমস এ রেজিস্টার করে থাকলে (যেমন পিন্টারেস্ট / স্পটিফাই ইত্যাদি) ফেসবুক লগইন এর মাধ্যমে সেগুলি ব্যবহার করে যেতে পারবেন।
  • আপনি পুনরায় প্রোফাইল চালু করে ব্যবহার করতে পারেন, যখন খুশি।

ফেসবুক ডি-অ্যাক্টিভেশন বা নিষ্ক্রিয়করণ :-

আপনি যদি কম্পিউটারে যেকোনো ব্রাউসার যেমন মজিলা, গুগল ক্রোম ইত্যাদি থেকে ফেসবুক ব্যবহার করেন সেক্ষেত্রে ফেসবুক ডি-অ্যাক্টিভেট করার জন্য ডানদিকে উপরে থাকা নিচের দিকে মুখ থাকা চিহ্ন (▼) তে ক্লিক করুন > Settings এ ক্লিক করুন > এবারে বাঁ দিকের কলামে General অপশনে ক্লিক করুন > বেছে নিন Manage your account > এরপরে Deactivate your account অপশনে ক্লিক করে নির্দেশগুলি ফলো করুন।

আপনি যদি এন্ড্রোইড মোবাইল অ্যাপে ফেসবুক ব্যবহার করেন সেক্ষেত্রে ফেসবুক ডি-অ্যাক্টিভেট করার জন্য ডানদিকে উপরে থাকা মেনু চিহ্ন (☰) তে ট্যাপ করুন > Settings & Privacy এ ট্যাপ করুন > এবারে Settings অপশনে ক্লিক করুন > বেছে নিন Personal Information এবং Manage Account এ ক্লিক করুন > এরপরে Deactivate অপশনে ট্যাপ করে নির্দেশগুলি ফলো করুন।

আপনি যদি Facebook Messenger ডি-অ্যাক্টিভেট করতে চান তাহলে আপনার মোবাইল ডিভাইস এ থাকা Messenger অ্যাপ খুলতে হবে। বাঁ দিকে থাকা প্রোফাইল এর ছবিতে ট্যাপ করুন > চলে যান Legal & Policies অপশনে এবং সেখান থেকে Deactivate Messenger > শেষমেশ Deactivate অপশনে ট্যাপ করুন।

কিন্তু, আপনি যদি আবার ফেসবুকে ফিরে আসতে চান তাহলে ?

আপনি যদি নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি নিষ্ক্রিয় করার পরে ফেসবুকে ফিরে আসতে চান, তবে আপনি যে কোনও সময় ফেসবুকে ফিরে আসতে পারেন। কিভাবে ফিরবেন ? আপনার ফেসবুক একাউন্টে লগইন করলেই আপনার ফেসবুক প্রোফাইল পুনরায় চালু হয়ে যাবে। এছাড়া অন্য কোনও জায়গায় আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে লগইন করলেও আপনার অ্যাকাউন্টটি পুনরায় সক্রিয় হবে। মনে রাখবেন, পুনরায় সক্রিয়করণ সম্পূর্ণ করতে লগইন করার সময় আপনার ফেসবুক একাউন্টে থাকা ইমেল বা মোবাইল নম্বর এর অ্যাক্সেস থাকা দরকার।

ফেসবুক ডিলিট বা মুছে ফেলা :-

ফেসবুক পুরোপুরি মুছে ফেলার আগে আপনি চাইলে আপনার ফেসবুক তথ্য (যেমন ফটো, আপনার করা পোস্টগুলি ইত্যাদি) ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। আপনার একাউন্ট একবার ডিলিট হলে আপনার তথ্যগুলি আর ফেরত পাবেন না।

আপনি যদি কম্পিউটারে যেকোনো ব্রাউসার যেমন মজিলা, গুগল ক্রোম ইত্যাদি থেকে ফেসবুক ব্যবহার করেন সেক্ষেত্রে ফেসবুক ডিলিট করার জন্য ডানদিকে উপরে থাকা নিচের দিকে মুখ থাকা চিহ্ন (▼) তে ক্লিক করুন > Settings এ ক্লিক করুন > এবারে বাঁ দিকের কলামে Your Facebook Information অপশনে ক্লিক করুন > বেছে নিন Delete Your Account and Information > এরপরে Delete My Account অপশনে ক্লিক করে নির্দেশগুলি ফলো করুন।

আপনি যদি এন্ড্রোইড মোবাইল অ্যাপে ফেসবুক ব্যবহার করেন সেক্ষেত্রে ফেসবুক ডিলিট করার জন্য ডানদিকে উপরে থাকা মেনু চিহ্ন (☰) তে ট্যাপ করুন > Settings & Privacy এ ট্যাপ করুন > এবারে Settings অপশনে ক্লিক করুন > বেছে নিন Your Facebook Information এবং Account Ownership and Control এ ক্লিক করুন > এরপরে Deactivation and Deletion অপশনে ট্যাপ করে নির্দেশগুলি ফলো করুন।

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিলিট করা কি বাতিল করা যায় ?

উত্তর হ্যাঁ/না দুটোই সঠিক। ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার পর থেকে, ৩০ দিনের মধ্যে হলে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিলিট হওয়া থেকে আটকানো যায়, ৩০ দিন পেরিয়ে গেলে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট সহ সমস্ত তথ্য মুছে ফেলা হবে এবং আপনার তথ্য আর ফেরত পাবেন না।

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিলিট হওয়া থেকে বাঁচাতে কি করবেন ?

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার পর থেকে, ৩০ দিন পেরিয়ে যাওয়ার আগে যেকোনো সময় আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট লগইন করে Cancel Deletion অপশনে ক্লিক করতে হবে।

আরও জেনে রাখুন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পর থেকে পাকাপাকিভাবে তথ্য মুছতে প্রায় ৯০ দিন পর্যন্ত সময় লাগে। ফেসবুক যখন আপনার তথ্য মুছতে থাকে, তখন অন্য কোনো ফেসবুক ব্যবহারকারী সেগুলি দেখতে পান না।

আপনি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিলিট করলেও, ফেসবুক কি পুরোপুরি আপনার তথ্য মুছে ফেলে ?

ফেসবুক আপনার তথ্য মুছে ফেলে বলে ঠিকই। কিন্তু আপনার তথ্যের প্রতিলিপি ৯০ দিন পরেও ব্যাক আপ স্টোরেজে থেকে যায়! এবং কোনো বিপর্যয়, সফটওয়্যার সংক্রান্ত সমস্যা, অন্য কোনো তথ্য হারানো সংক্রান্ত সমস্যা হলে ওই ব্যাক আপ স্টোরেজে থেকে ফেসবুক তথ্য পুনরুদ্ধার করে। এছাড়াও বিশেষ ক্ষেত্রে যেমন আইনি সমস্যা, শর্তাবলী লংঘন, ও বিভিন্ন ক্ষয় ক্ষতি রুখতে ফেসবুক আপনার তথ্য রেখে দেয়।

আমাদের উপস্থাপনা যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে, অনুগ্রহ করে আমাদের পোস্ট গুলি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করবেন। আপনি শেয়ার করলে আমাদের আরো ভালো কাজ করতে উৎসাহ প্রদান করবে। আপনার যদি কিছু বলার থাকে আমাদের এই ওয়েবসাইটে দেওয়া যোগাযোগ এর ফর্ম পূরণ করুন। আপনার একটা শেয়ার এরমূল্য ডিজিটাল বাঙালির কাছে অনেক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here